Breaking News
Home / অন্যান্য / বি.সি.এস পরীক্ষার্থীর উদ্দেশ্যে কিছু টিপস ও গাইডলাইন

বি.সি.এস পরীক্ষার্থীর উদ্দেশ্যে কিছু টিপস ও গাইডলাইন

“আগামী বি সি এস পরীক্ষার্থীর উদ্দেশ্যে” কিছু প্রশ্ন প্রায় শুনি,আপু আমি একটা জাতীয় ভার্সিটিতে পড়ি আমি কি বি সি এস ক্যাডার হতে পারব?? কিংবা অনেকে জানতে চায়,আমি একটা প্রাইভেট ভার্সিটিতে পড়ি আমার দ্বারা কি বি সি এস সম্ভব??? এছাড়াও আমার একাডেমিক রেজাল্ট ভালো নয়,অনেক সমস্যা আর্থিক, সামাজিক,সাংসারিক ইত্যাদি।।আবার অনেকে মাত্র ১ম/২য়/৩য় বর্ষের ছাত্র/ছাত্রী তাদের অনেকেই হতাশায় ভুগছেন,কি করবেন?? পারবেন কিনা??ইত্যাদি…. ইত্যাদি।।

তাদের সবার উদ্দেশ্য, প্রথমে লক্ষ্য টাকে স্থির করুন।আপনি নিজেই নিজেকে সবচেয়ে ভালো জানেন, বুঝেন।আপনি জানেন আপনার দ্বারা কি সম্ভব। যদি মনে করেন হ্যা..আমি বি সি এস ক্যাডার হব,আর সেই লক্ষ্য এ যদি আপনি অটল থাকেন,তাহলে বিশ্বাস করুন আপনি পারবেন।।তবে হ্যা আপনি ক্যাডার হতে চান আর কষ্ট করতে চান না,পরিশ্রম করবেন না তাদের ক্ষেত্রে কিছুই বলার নেই। কারন কষ্ট, পরিশ্রম, ধৈর্য ছাড়া বি সি এস ক্যাডার হওয়ার কোন পথ আমার জানা নেই।।। আর আপনি কোথায় পড়েন,পড়ছেন এটা নিয়ে এত চিন্তা করাটা কি খুবই যৌক্তিক??

আপনি জাতীয়তে পড়েন আর আপনার সব সময় আক্ষেপ,কেন পাবলিকে পড়লাম না তাহলে চাকরি পাওয়া সহজ হয়ে যেত।।।কিন্তু ধরুন কেউ একজন রাবি/জবি/খুবি/চবিতে পড়ে সে কি আক্ষেপ করে জানেন?? সে ভাবে কেন ঢাবিতে পড়লাম না। এইরকমই সবারই একটা না একটা আক্ষেপ থাকে।তারজন্য কি সব ছেড়ে দিয়ে বসে থাকবেন??নাকি আপনি সবাইকে দেখিয়ে দিবেন যে,আমি পাবলিকে পড়িনি তো কি হয়েছে…আমি জাতীয় /প্রাইভেট এর স্টুডেন্ট হয়েও তাদের সমান,সমান মর্যাদার।।।

আপনি আপনাকে প্রমান করুন,নিজের যোগ্যতা দেখিয়ে দিন পিএসসি র স্যাররা যথেষ্ট বিজ্ঞ,জ্ঞানী ও বিচক্ষন।তারা মেধার যথেষ্ট মূল্যায়ন করতে জানেন।। তাই এইসব লেইম এক্সকিউজ মাথাও আনবেন না, আর যারা এইসব বলে তাদের থেকে দূরে থাকবেন।এইসব চিন্তা বাদ দিয়ে ঠিকমত পড়াশুনা করুন,পরিশ্রম করুন,সফল হবেন।নিজেকে সম্মান করতে শিখুন। কেউ আপনাকে তার জায়গা ছেড়ে দিবেনা,নিজের যোগ্যতা দিয়ে,মেধা দিয়ে,পরিশ্রম দিয়ে,নিজের জায়গা নিজেই তৈরি করুন।আপনিই যদি আপনাকে সম্মান করতে না পারেন তবে অন্যরা কিভাবে করবে???

Check Also

ব্রেকিংঃ ২০১৯ সালের শুরুতেই শিক্ষক নিয়োগ হবে ৪০ হাজার

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৪০ হাজার শূন্যপদে নিয়োগের সুপারিশ আসছে শিগগির। নতুন শিক্ষাবর্ষে যাতে লেখাপড়া বিঘিœত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *