Breaking News
Home / জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় / আগামীকাল থেকে অনার্স ২য় বর্ষ পরীক্ষা শুরু, যে বিষয় গুলো অবশ্যই মাথায় রাখবেন

আগামীকাল থেকে অনার্স ২য় বর্ষ পরীক্ষা শুরু, যে বিষয় গুলো অবশ্যই মাথায় রাখবেন

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮ সালের ২য় বর্ষ অনার্স নিয়মিত ও অনিয়মিত পরীক্ষা শনিবার (০১ ডিসেম্বর) থেকে শুরু হবে। শুক্রবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ জানানো হয়েছে। এতে আরো জানানো হয়েছে, সারাদেশে ৭৬৪টি কলেজের ২৭৫টি কেন্দ্রে সর্বমোট ৪ লাখ ৩১ হাজার ৬১৭ জন পরীক্ষার্থী ৩১টি বিষয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবেন।

পরীক্ষা প্রতিদিন দুপুর ১টা থেকে শুরু হবে। সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে এরইমধ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে কর্তৃপক্ষ।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠানে প্রশাসন, সংশ্লিষ্ট কলেজ, শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের সহযোগিতা চেয়েছে।

যে বিষয় গুলো অবশ্যই মাথায় রাখবেন

সময় ভাগকরণঃ পরীক্ষা দেওয়া আগের দিনে কতটুকু সময় পড়বেন, কখন এবং কিভাবে যাবেন ইত্যাদি বিষয় সময় ভাগ করে নিন । পরীক্ষার সাজেশন্সঃ বিগত সালের প্রশ্নে ২০১২ সাল হতে ২০১৬ অনুসরণ করুন । ইনাশাল্লাহ শতকরা ৮০% কমন পড়বে । বাকি ২০% ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি নতুন সংযোজন করে থাকে ।

পরীক্ষা কেন্দ্রে যাওয়াঃ পরীক্ষা কেন্দ্রে সর্বনিম্ন ১ ঘন্টা আগে উপস্থিত থাকুন । পরীক্ষা কেন্দ্রে রেজিষ্টেশন কার্ড, এডমিট কার্ড, কলম (কালো কালি সর্বনিম্ন ২ টি), পেন্সিল, রাবার, স্কেল, ক্যালকুলেটর (প্রয়োজন মত), জ্যামিতি বক্স (প্রয়োজন মত) ও অন্যান্য রঙ বে-রঙের কলম (লাল কালি ব্যতীত) নিয়ে যাবেন ।

যা মোটেও নিবেন নাঃ পরীক্ষা কেন্দ্রে ভুলেও নকল (বাসা থেকে লিখে আনা উত্তর পত্র) সাথে নিবেন না, মোবাইল (প্রয়োজনে নিলে পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষকের টেবিলে জমা দিবেন) । নকল যদি পরীক্ষক একবার পায় তবে আপনার খাতা যেমন একদিকে বাতিল হয়ে যাবে তোমনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ১ বছর পরীক্ষা শাস্তি সরূপ বাতিল করে দিবে ।

OMR (ও এম আর) শীট পূরণে সতর্কতাঃ তাড়াহোরা না করে মনযোগ সহকারে ও.এম.আর শীট (যে শীটে আপনার নাম, রেজিষ্টেশন নম্বর, সাবজেক্ট কোড ইত্যাদি থাকে) পূরণ করুন । পূরণ করার সময় কোন ভুল হলে তাৎক্ষণিকভাবে পরীক্ষায় দায়িত্বে নিয়োজিত শিক্ষককে জানান । ও এম আর শীট পূরণ করা হলে নিজ দায়িত্ব চেক করে নিন । পরীক্ষায় দায়িত্বে নিয়োজিত শিক্ষকের ভরসায় থাকবেন না ।

খাতা মার্জিন ও অন্যান্য বিষয়ঃ যদি ছকের অংক হয় (যেমন হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের অংক) তবে মার্জিন দেওয়া দরকার নেই । অন্যান্য থিওরি প্রশ্নের ক্ষেত্রে কলমে বা পেন্সিলে (খাতার ৪ দিকে ৩ ইঞ্চি বা ১ স্কেল করে) মার্জিন করে নিবেন ।

প্রশ্ন লেখার নিয়মঃ নতুন সিলেবাস (২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষ হতে কার্যকর) মোট ১০০ মার্কে ২০ মার্ক ইনকোর্স (যা কলেজে পরীক্ষা মাধ্যমে দেওয়া হবে) এবং বাকি ৮০ মার্কে ইয়ার ফাইনাল পরীক্ষা প্রশ্ন করা হবে । ৮০ মার্ক প্রশ্নে পার্ট এ তে ১২ প্রশ্নে মধ্যে ১০ টি প্রশ্নে (১*১০=১০), পার্ট বি তে ৮ প্রশ্নে মধ্যে ৫ টি (৪*৫=২০) এবং পার্ট সি তে ৮ প্রশ্নে মধ্যে ৫ টি প্রশ্নে (১০*৫=৫০) প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে । যে পার্টের প্রশ্নে সহজ সে পার্টের প্রশ্নের উত্তর আগে দিবেন । প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর ধারাবাহিকভাবে দিবেন । তবে যে প্রশ্নটি পারেন কিন্তু সেই মুহূর্তে মনে পড়ছে না সেটির জন্য পৃষ্ঠা খালি রাখুন । পার্ট এ উত্তর সর্বোচ্চ ১ থেকে ২ লাইনের মধ্যে শেষ করুন । পার্ট বি উত্তর সর্বনিম্ন ২ পৃষ্ট (পয়েন্ট আকারে লিখলে ৫ টি পয়েন্ট এবং প্রতি পয়েন্টে ৪ টি প্যারা) লিখবেন । পার্ট সি উত্তর সর্বনিম্ন ৪ পৃষ্ট (পয়েন্ট আকারে লিখলে ১০ থেকে ১৫ টি পয়েন্ট এবং প্রতি পয়েন্টে ৪ টি প্যারা) লিখবেন । কোন লেখকের উক্তির লেখার সময় নীল কালি ব্যবহার করবেন । লেখাগুলোকে সর্বদা প্যারা আকারে লিখবেন । পরীক্ষার প্রশ্নে সংজ্ঞা, পার্থক্য, সুবিধা-অসুবিধা ইত্যাদি লেখার সময় ভূমিকা দেওয়া ভাল ।

পরীক্ষা শেষে খাতা রিভিশনঃ পরীক্ষার সময় ৪ ঘন্ট । এই ৪ ঘন্টার মধ্যে সর্বোচ্চ ৩ ঘন্টা ৪৫ মিনিটের মধ্যে পরীক্ষা শেষ করুন এবং বাকি ১৫ মিনিটের মধ্যে খাতার প্রশ্নের উত্তর রিভিশন দিন । পরীক্ষকের নিয়ম মানাঃ পরীক্ষার কেন্দ্রে পরীক্ষকের সাথে কোন তর্কে লিপ্ত হবেন না । ধৈর্য সহকারে পরীক্ষা দিবেন । যদি পরীক্ষকের চোখে একবার আপনি টার্গেট হয়ে যান তবে আপনার পরীক্ষার ১২ টা বাজাতে তিনি একাই যথেষ্ট। অনার্স (সেশন ২০১৭-১৮, ১ম বর্ষ )সকল শিক্ষার্থীর জন্য রইলো শুভ কামনা

Check Also

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিষয় পরিবর্তন অথবা মাইগ্রেশন এর পদ্ধতি (ভিডিও)

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিষয় পরিবর্তন অথবা মাইগ্রেশন এর পদ্ধতি (ভিডিও)! জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি প্রক্রিয়ার ১ম অথবা ২য় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *